1. admin@janasongjog.com : জনসংযোগ ডেস্ক :
  2. harwin@sengined.com : harwin :
  3. kimbhary@sengined.com : kimbhary :
  4. jeffereybillson1051@1secmail.org : kpuklaudia :
  5. lyssa@g.makeup.blue : lachlanmilligan :
  6. agrant807@yahoo.com : latoshalvz :
  7. margarite@i.shavers.skin : lucillerodger :
  8. malinde@b.roofvent.xyz : reneebrotherton :
  9. bookcafebd21@gmail.com : Sazzadur : Sazzadur
  10. test15983366@mailbox.imailfree.cc : test15983366 :
  11. test18127693@mailbox.imailfree.cc : test18127693 :
  12. test26756731@email.imailfree.cc : test26756731 :
  13. test34593328@email.imailfree.cc : test34593328 :
  14. test38309499@mailbox.imailfree.cc : test38309499 :
  15. test41245078@inbox.imailfree.cc : test41245078 :
  16. test42396905@mailbox.imailfree.cc : test42396905 :
  17. ariannekeeling@1secmail.org : thaliacedillo46 :
  18. zakirmin976@gmail.com : Zakir_min :
রাস্তায় প্রবল যানজট, তিন কিলোমিটার দৌড়ে হাসপাতালে পৌঁছে অস্ত্রোপচার চিকিৎসকের | জনসংযোগ
বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:৪৫ অপরাহ্ন

রাস্তায় প্রবল যানজট, তিন কিলোমিটার দৌড়ে হাসপাতালে পৌঁছে অস্ত্রোপচার চিকিৎসকের

  • প্রকাশের সময় মঙ্গলবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৫৫ বার পড়া হয়েছে
Screenshot 20220913 0746282
print news

দায়িত্বশীলতা আর মানবিকতার অনন্য নজির তৈরি করেছেন ভারতের চিকিৎসক গোবিন্দ নন্দকুমার। যানজটে আটকে পড়ায়, সময় মতো হাসপাতালে পৌঁছাতে নেমে পড়েন রাস্তায়। ৩ কিলোমিটার পথ রীতিমতো দৌড়ে পৌঁছান হাসপাতালে। সময় মতো সার্জারি করায় বড় ধরনের বিপদ থেকে রক্ষা পান রোগী। গোবিন্দ কুমারের এমন দায়িত্বশীলতা আলোড়ন তুলেছে ভারতজুড়ে।

ভারতের চিকিৎসক গোবিন্দ নন্দকুমারের এই দৌঁড়ের ভিডিও এখন ভাইরাল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের অপেক্ষায় ছিলেন গুরুতর রোগী। দেরি হলেই তৈরি হতে পারে জীবনের ঝুঁকি। অথচ তীব্র যানজটে আটকা পড়ে ড. গোবিন্দের গাড়ি। বৃষ্টির কারণে অনেকটা অচলাবস্থা রাজপথে। উপায় না দেখে গাড়ি থেকে নেমে যান তিনি। দৌড়ে পৌঁছে যান হাসপাতালে। দৌড়ের একটি ভিডিও নিজেই আপলোড করেন ইনস্টাগ্রামে।

এ বিষয়ে চিকিৎসক গোবিন্দ নন্দকুমার বলেন, প্রতিদিন বেঙ্গালুরুর কেন্দ্র থেকে সার্জাপুরে হাসপাতালে যাতায়াত করি। সেদিনও ঠিক সময়েই ঘর থেকে বের হই। সার্জারির সবকিছু প্রস্তুত করে অপেক্ষা করছিল আমার টিম। রাস্তায় জ্যামের অবস্থা দেখে, দ্বিতীয় চিন্তা না করেই গাড়ি থেকে নেমে যাই। কারণ সময় মতো অপারেশন না হলে রোগী ঝুঁকিতে পড়তেন।

শেষপর্যন্ত সফলভাবেই হয় রোগীর সার্জারি। বড় ঝুঁকি থেকে বেঁচে যান রোগী।

বেঙ্গালুরুর মানিপাল হাসপাতালের গ্যাস্ট্রোএনটেরোলজির সার্জন ড. গোবিন্দ। তার এমন দায়িত্বশীলতার দৃষ্টান্ত যেকোনো পেশার মানুষকেই অনুপ্রেরণা যোগাবে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..



সর্বশেষ খবর